ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি বিয়ে করেছেন। পাত্র কামরুজ্জামান রনি। তিনি নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের নির্দেশক ও সদস্য। গত ১০ মার্চ রাতে রাজধানীর রাজারবাগ কাজি অফিসে লুকিয়ে বিয়ে করেন তারা।

বিজ্ঞাপন

রনি তার বিয়ের খবর নিশ্চিত করে বলেন, পরীমনির সাথে বিয়েটা হঠাৎ করে ফেলেছি। বর্তমানে দুজনে মংলা বন্দরের পাশে করমজল এলাকায় আছি। এখানে পরীমনি ‘অ্যাডভেঞ্জার অব সুন্দরবন’ ছবির শুটিং করছেন। নিজেদের একটু গুছিয়ে নিয়ে আমরা বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করব।’

অভিনেত্রী ও নির্মাতা হৃদি হকের ‘১৯৭১: সেই সব দিন’ ছবির সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন রনি। ওই ছবিতে অভিনয় করছেন পরীমনি। সেখানে কাজ করতে গিয়ে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া তৈরি হয় তাদের। একপর্যায়ে রনিই বিয়ের প্রস্তাব দেন পরীকে। মনে মনে রনির প্রতি দুর্বল পরী সেই প্রস্তাব এড়াতে পারেননি।

বিয়ে নিয়ে পরীমনি বলেন, প্রায় পাঁচ মাস আগে ছবির গল্প শোনানোর জন্য হৃদি আপুসহ রনি এসেছিল আমাদের বাসায়। তখন আমি তাকে খেয়ালই করিনি। শুটিংয়ে গিয়ে কোথায় থাকব কীভাবে যাব, সেসব নিয়ে তার সঙ্গে প্রথম আলাপ শুরু হয়। এভাবেই একসময় আমাদের মধ্যে সখ্যতা গড়ে ওঠে।

তিনি বলেন, মার্চের ৩ থেকে ৭ তারিখ আমরা ঠাকুরগাঁওয়ে শুটিং করি। সেখানে ভীষণ আনন্দে সময় পার হয়ে যায়। ৮ মার্চ ঢাকায় এসে আমি তাকে খুব মিস করছিলাম। পরদিন ৯ মার্চ আমরা দেখা করি এবং সে আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। আমার মন যেন কেমন করে ওঠে। ওই রাতেই আমরা বিয়ে করে ফেলি।

লুকিয়ে বিয়ে করেছেন কেন? জানতে চাইলে পরীমনি বলেন, আমার পরিবারের কেউ বিয়ের ব্যাপারটা জানে না। পালিয়ে বিয়ে করার মজাটা নিতে চেয়েছিলাম। নিজেদের একটু গুছিয়ে নিয়ে আমরা বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করবো।
২০১৫ সালে ভালোবাসা সীমাহীন চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় পরীমনির। সে বছর রানা প্লাজা ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে আলোচনায় আসেন তিনি, যদিও এখনো মুক্তি পায়নি ছবিটি। পরীমনি অভিনীত ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ভালোবাসব তোমায়, মহুয়া সুন্দরী, রক্ত এবং স্বপ্নজাল।