করোনা ভাইরাস নিয়ে গুবজ ছড়ানোর অভিযোগে চিকিৎসক গ্রেফতার

২৪ ঘন্টা ডট নিউজ। নিজস্ব প্রতিনিধি : করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে কেন্দ্র করে একটি মহল গুজব ছড়িয়ে দেশে অস্থিরতা সৃষ্টির প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গত কয়েকদিন ধরে ৩৫ সেকেন্ডের একটি অডিও বার্তা ভাইরাল হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

যার মাধ্যমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৮/১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে পরিকল্পিতভাবে গুজব ছড়ানো হচ্ছে।

এদিকে ম্যাসেঞ্জারে গুজব সৃষ্টির বিষয়ে সিএমপি পুলিশের সাইবার ক্রাইম টিম সক্রিয় ও সজাগ রয়েছে। ফেসবুক মেসেঞ্জারে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ইতিমধ্যে এক চিকিৎসকে আটক করেছে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ।

আজ শনিবার বিকেলে ইফতেখার আদনান নামে এ চিকিৎসককে আটক করা হয়েছে জানিয়ে বিস্তারিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানানো হবে বললেন পুলিশ।

গুজব সৃষ্টিকারী চিকিৎসক ইফতেখার মোহাম্মদ আদনান চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম নগরীর ও আর নিজাম রোডে বেসরকারি ক্লিনিক মেডিকেল সেন্টারে কর্মরত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এর আগে সকালে সেই গুজব সৃষ্টিকারীও প্রশাসনের নজরদারির মধ্যে রয়েছেন জানিয়ে সিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ মাহবুবর রহমান গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, গুজব সৃষ্টির বিষয়ে পুলিশের সাইবার ক্রাইম টিম সক্রিয় ও সজাগ আছে।

তাছাড়া গুজবে যাতে আতঙ্কিত না হয় সে জন্য নগরীর ১৬টি থানা এলাকায় চালানো হচ্ছে পুলিশের মাইকিং। ইতিমধ্যে রটনাকারীদের মধ্যে একজনকে ধরা হয়েছে, আরেকজনকে পুলিশ চিহ্নিত করেছে বলে জানান তিনি।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি বলেন, মানুষের মধ্যে একটা অযথা আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য, দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য একটা বিশেষ মহল এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে। এর আগে গুজব সৃষ্টির অভিযোগে পটিয়ায় এক প্রকৌশলী এবং নগরীতে আটক করা হয়েছে এক ব্যবসায়ীকে।