ক্রেতা বিক্রেতাদের হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করবে চসিক

২৪ ঘন্টা ডট নিউজ। নিজস্ব প্রতিনিধি : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন বলেন, নগরীর বিভিন্ন স্থানে চসিকের অনেক হাট-বাজার আছে। এই বাজার গুলোতে আগত ক্রেতা-বিক্রতাকে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার নিমিত্তে চসিকের উদ্যোগে হাত ধোঁয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আজ মঙ্গলবার দুপুরে সিটি কর্পোরেশন কনফারেন্স হলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির দ্বিতীয় সভায় একথা বলেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা, জনসমাগম এড়িয়ে চলা এবং যার যার অবস্থান থেকে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জাতিকে সহায়তা করার উপর গুরুত্বারোপ করলেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র।

মেয়র বলেন করোনা ভাইরাসের অন্যতম চিকিৎসা হচ্ছে হোম কোয়ারেন্টাইন। এই ভাইরাসের জন্য এটি এক ধরণের এন্টিবেটিক ঔষুধ। এই রোগীর জন্য ১৪দিন হোম কোয়ারেন্টাইন থাকা বাধ্যতামূলক।

কোয়ারেন্টাইনকৃত ব্যক্তি ১৪দিন ঘরের বাইরে না গিয়ে নিজ বাড়ীর একটি কক্ষে অবস্থান করলে আপনা আপনি ভাল হয়ে যায়। কারণ ১৪দিনের পর করোনাভাইরাসের কার্যকারিতা থাকে না।

সিটি মেয়র আরো বলেন করোনা ভাইরাসের জন্য আজকে থেকে সারা দেশে সেনাবাহিনী কাজ করবে। আমাদের সকলের উচিত দেশ মাতৃকার অতন্ত্র প্রহরী সেনাবাহিনীকে সর্বোতভাবে সহায়তা করা। আসুন এই দুর্যোগ মহুর্তে আমরা স্ব-স্ব অবস্থান থেকে তাদেরকে সহযোগিতা যুগিয়ে যায়।

তিনি বলেন, সিটি কর্পোরেশন, জেলা প্রশাসন ও বিভাগীয় প্রশাসনের সম্মিলিতভাবে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। সমন্বয় সভায় জেলা পর্যায় থেকে শুরু করে বিভাগীয় পর্যায়ে কোন কোন হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি হবে তা নির্ধারণ করা হয়েছে।

যারা কোয়ারেন্টাই মানবে না, সংক্রামক রোগ আইন ২০১৮ অনুযায়ি তাদের বিরুদ্ধে জেল বা জরিমানা বা উভয়দন্ড হতে পারে।

চসিক প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার সেলিম আকতার চৌধুরীর সঞ্চলনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার, চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা, সিভিল সার্জন চট্টগ্রাম ডা. এস কে ফজলে কবির, এডিসি মো. কামাল হাসান, প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের ডিডি মো. সুলতান মিয়া, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার নাথ, বিভাগীয় সমাজকল্যাণ অফিস ডেপুটি ডাইরেক্টর হাসান মাসুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।