ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: হযরত গাউছুল আজম আলহাজ্ব শাহ্‌ছুফি মাওলানা সৈয়দ গোলামুর রহমান আল হাচানী, আল মাইজভান্ডারী প্রকাশ বাবা ভান্ডারী (কঃ) কেবলা কাবার বার্ষিক ওরশ স্থগিত করা হয়েছে। আগামী ২২ চৈত্র, ৫ এপ্রিল বার্ষিক ওরশ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২৫ মার্চ) দুপুরে মাইজভান্ডার গাউছিয়া রহমান মনজিলের সম্মেলন কক্ষে দরবারের সকল আওলাদে পাক ও প্রশাসনের সমন্বয়ে ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব সায়েদুল আরেফিন এর সভাপতিত্বে ওরশ শরীফ ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করনীয় বিষয়ে এক প্রশাসনিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সরকারী ঘোষণা অনুযায়ী দেশের সার্বিক পরিস্থিতি ও জনস্বার্থ বিবেচনায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ওরশের সকল আনুষ্ঠানিকতা ও গণ জমায়েত এর কর্মসূচী স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে। তবে ওরশ উপলক্ষে কোরান খতম, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলসহ কর্মসূচী সীমিত আকারে বিভিন্ন মনজিলে ঘরোয়া ভাবে পালন করা হবে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাইজভান্ডার ওরশ কমিটির সভাপতি ও বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশন (বিটিএফ) এর চেয়ারম্যান, সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী এমপি। সভায় দরবারের সকল মনজিলের সকল সম্মানিত আওলাদগন উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বিটিএফ এর যুগ্ন মহাসচিব, শাহ্জাদায়ে গাউছে জামান আলহাজ্ব শাহ্ছুফি সৈয়দ তৈয়বুল বশর মাইজভান্ডারী।

সভায় ফটিকছড়ি উপজেলা পরিষদ এর চেয়ারম্যান এইচ. এম. আবু তৈয়ব, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সায়েদুল আরেফিনসহ প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তাগন ও ফটিকছড়িতে কর্মরত সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।