প্রয়াত খোরশেদের পুত্র-কন্যার অভিভাবকত্ব নিলেন মেয়র

অকালপ্রয়াত চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের সমন্বয়কারী নাগরিক-সাংস্কৃতিক সংগঠক খোরশেদ আলমের পরিবারের সার্বিক দায়িত্ব নিলেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন।

তিনি আজ শুক্রবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে বন্দরনগরীর দক্ষিণ বাকলিয়ার ম্যাচ ফ্যাক্টরি রোড এলাকায় এই সংগঠকের বাসায় গিয়ে পরিবারটির খোঁজ নেন এবং পুত্র-কন্যাদের পড়ালেখা এবং শহরে থাকার দায়িত্ব গ্রহণ করেন ।‌

খোরশেদ চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের সমন্বয়কারী দায়িত্বের পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সদস্য সহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে যুক্ত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার ভোররাতে এই নাগরিক-সাংস্কৃতিক সংগঠকের অকাল মৃত্যু হয়। ‌দুপুরে জানাজা শেষে চৈতন্য গলি কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয় হয়। শুক্রবার দুপুর বারোটার দিকে খোরশেদ আলমের বাসায় যান চসিক মেয়র ।

এসময় চসিক মেয়রের সাথে ছিলেন বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের আহ্বায়ক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, নিকটবর্তী বক্সিরহাট ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক, ১৯ নং দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি নুরুল আজিম নুরু, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা তরুণ সংগঠক ইয়াসির আরাফাত, ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

সংগঠক খোরশেদ আলমের মা, শ্বাশুড়ি, স্ত্রী, পুত্র-কন্যা সহ স্বজনদের আশ্বস্ত করে মেয়র বলেন, সাংস্কৃতিক সংগঠকদের অবদান কখনোই বৃথা যায় না।

মেয়র কেজি ওয়ানে পড়া খোরশেদ আলমের পড়া শিশুপুত্র ও দশম শ্রেণীতে পড়া কন্যার পড়ালেখা ও পরিবারটির শহরে থাকার ব্যবস্থা করাসহ সার্বিক অভিভাবকত্বের দায়িত্ব গ্রহণের বিষয়েও তাদের আশ্বস্ত করেন।‌

মেয়র সংস্কৃতিক নাগরিক সংগঠক খোরশেদ আলমের কর্মজীবনের অবদানের কথা স্মরণ করে বলেন, খোরশেদ আলম মাঠের সংগঠক হিসেবে অসাম্প্রদায়িক প্রগতিশীল সমাজ বিনির্মাণে কাজ করেছেন। তাঁর মতো সংগঠকদের কারণে সমাজ মননশীলতার অগ্রগতি ও কল্যাণের পথে এগিয়ে গেছে।

এদিকে চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের আহ্বায়ক পেশাজীবী নাগরিক সংগঠক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী জানান, ইতোমধ্যে নাগরিক-সাংস্কৃতিক সংগঠক খোরশেদ আলমের পরিবারটির পাশে দাঁড়ানোর জন্য অনেক ঘনিষ্ঠ স্বজন শুভার্থীও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তাঁর পরিবারের ভবিষ্যৎ নিশ্চয়তার লক্ষ্যে বিক্ষিপ্তভাবে কিছু না করে জন্য একটি সহায়তা তহবিল গঠনের প্রাথমিক কাজ শুরু হয়েছে।‌ এতে আগ্রহীদের নাম তালিকাভুক্ত করতে সাবেক ছাত্র নেতা ইয়াসির আরাফাতকে সাচিবিক দায়িত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।‌ আগ্রহীরা তার কাছে নাম জমা দিতে পারবেন বলেও জানান সংগঠনের আহ্বায়ক । ‌

চসিক মেয়র দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মরহুম এস এম মহিম উদ্দিন মহিমের বাসভবনেও যান এবং পরিবারটির খোঁজখবর নেন। সাবেক ছাত্রনেতা মহিম উদ্দিনের স্ত্রী,পুত্র-কন্যাসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের সাথেও কুশল বিনিময় করেন ।

এসময় মহিম উদ্দিনের স্ত্রী শিরিন আক্তার, পুত্র আবরার মহিউদ্দিন ও কন্যা নাফিসা মহিউদ্দিন, ভাই এস এম ইউসুফ, এসএম কামাল উদ্দিন, এসএম সেলিম, সিরাজুল মোস্তফা, জসিম সালাম, ভাতিজা নায়েব আলী সেলিম, শাফায়েত সেলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন ।

এই বিভাগের আরো খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.