লোহাগাড়া প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় পৃথক অভিযান চালিয়ে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক দিয়ে কলাভর্তি ট্টাকে করে পাচারকালে ৫ হাজার পিস এবং আমিরাবাদের স্কুল রোড থেকে ২১শ’ পিস ইয়াবা নিয়ে আটক ৪ মাদক বিক্রেতাকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দিয়েছে আদালত।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৩০ জুন) দুপুরে আটককৃতদের আদালতে হাজির করা হলে আদালত এ আদেশ দেন। এর আগেরদিন ২৯ জুন (সোমবার) রাতে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে ইয়াবাসহ আটক করে থানা পুলিশ। এসময় ইয়াবা পাচার কাজে ব্যবহার করা কলাভর্তি ট্টাকটি জব্দ করে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ এসব তথ্য গণমাধ্যমের কাছে নিশ্চিত করেছেন।

অভিযানে আটককৃতরা হল- খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানার আদর্শ পল্লীর মৃত বীর বিশ্বাসের পুত্র জনি বিশ্বাস(৩০), লোহাগাড়ার আমিরাবাদ স্কুল রোডের আবদুর রশিদের পুত্র মোহাম্মদ মমতাজ(৩৬), বড়হাতিয়া ইউনিয়নের মিয়াজির পাড়ার আব্দুল মোনাফের পুত্র আব্দুল আউয়াল(৩০), বড়হাতিয়া কুমিরাঘোনা চাকফিরানী এলাকার সাহাব মিয়ার পুত্র মোহাম্মদ কাইছার(৩২)।

লোহাগাড়া থানার কর্তব্যরত কর্মকর্তা সহকারী উপ-পরিদর্শক আব্দুল হালিম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার রাতে ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম ও এসআই গোলাম কিবরিয়ার নেতৃত্বে থানা পুলিশের একটি টিম উপজেলার চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চুনতি ফরেষ্ট রেঞ্জ কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে চট্টগ্রাম অভিমুখী কলাভর্তি একটি ট্টাকে তল্লাশী চালিয়ে ৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ জনি বিশ্বাসকে আটক করা হয়।

একইদিন রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলা সদরের আমিরাবাদ স্কুল রোডের লাল মিয়া টাওয়ারের সামনে থেকে ২ হাজার ১শ’ পিস ইয়াবাসহ মো : মমতাজ, আব্দুল আউয়াল ও কাইছারকে আটক করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে হাজির করা হলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন।

২৪ ঘণ্টা/এম আর/আজাদ