চট্টগ্রামের এম এ আজিজ আউটার স্টেডিয়াম মাঠ থেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান থেকে বর্তমান অধিনায়ক তামিম ইকবালসহ অনেক কিংবদন্তি খেলোয়াড় উঠে এসেছে। ঐতিহ্যবাহী মাঠটি এখন ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়ে খেলার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

এ অবস্থায় মাঠটিকে আগের রূপে ফিরিয়ে আনতে এবং মানুষকে পরিচ্ছন্ন পরিবেশের জন্য উৎসাহ যোগাতে শুক্রবার (১১সেপ্টেম্বর) ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ (ভিবিডি) – চট্টগ্রাম জেলা, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এবং চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় ২০০জন স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে “Team Up to Clean Up” নামে পরিচ্ছন্নতা প্রকল্পের ২য় পর্ব সম্পন্ন করেছে। এর আগে গত ২৫শে আগষ্ট প্রথমবারের মতো তারা মাঠটি পরিষ্কার করে।
এই পর্বে ভিবিডি’র সাথে Hult Prize at CVASU ও We নামে একটি পরিবেশবাদী সংগঠনও অংশগ্রহণ করেছে।

এদিন তারা সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীদের সহায়তায় মাঠ থেকে পানি নিষ্কাশন, ময়লা-আবর্জনা পরিস্কার, মাঠের উঁচুনিচু জায়গাগুলো সমান করে, আশেপাশের আগাছা কেটে মাঠটিকে খেলার উপযোগী করে তোলার চেষ্টা করেন। সর্বশেষ মাঠটি পরিষ্কার রাখতে জনসাধারনকে সচেতন করার লক্ষ্যে স্বেচ্ছাসেবকরা বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত প্লেকার্ড প্রদর্শন করেন।

প্রকল্প সম্মন্ধে ভিবিডি চট্টগ্রামের সভাপতি মোঃ কাউসার হোসেন বলেন, “এই মাঠ চট্টগ্রামের গৌরব, এটিকে বাঁচিয়ে রাখা আমাদের নাগরিক দায়িত্ব। আমাদের দায়িত্ববোধ থেকেই মাঠটিকে খেলার উপযোগী করে তুলতে ও আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত রক্ষনাবেক্ষণ করতে আমাদের এই উদ্যোগ। যাতে করে জনসাধারনের মাঝে একটি দীর্ঘমেয়াদী পরিবর্তন আসে। আশা করি চট্টগ্রামের নাগরিক সমাজ ও কর্তৃপক্ষ মাঠটির দিকে সদয় দৃষ্টি দিয়ে মাঠটিকে সংস্কার করবেন এবং তরুণদেরকে খেলাধুলায় উদ্ভুদ্ধ করে দেশের জন্য গৌরব বয়ে আনার সুযোগ করে দিবেন।”

এ সম্পর্কে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বলেন, “এটি ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশের অত্যন্ত ভালো একটি উদ্যোগ। তরুণদের এই কার্যক্রমগুলো আমার কাজে উৎসাহ জোগায়। সিটি কর্পোরেশন থেকে যা যা লাগবে, আমরা তা দিয়ে তাদেরকে সাহায্য করবো।”

২৪ ঘণ্টা/এম আর