সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি : আসন্ন সীতাকুণ্ড পৌরসভা নির্বাচনে পৌর মেয়র পদপ্রার্থী সাপ্তাহিক চাটঁগার বাণীর সম্পাদক বিশিষ্ট সাংবাদিক ও রোটারিয়ান মোঃ ইউসুফ স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৭টায় পৌরসদরস্থ সুপার মার্কেটের ৩য় তলায় প্রেসক্লাব কার্যালয়ে উক্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় পৌর মেয়র পদপ্রার্থী মোঃ ইউসুফ বলেন, সীতাকুণ্ড পৌরসভা একটি প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হলেও পৌরবাসীর কাক্ষিত আশা পূরণ হয়নি। পৌরসদরে সুন্দর একটি বাজার থাকলেও বাজারের সৌন্দর্য ফুটে উঠেনি। যদি বর্তমান কাঁচা বাজারটি বহুতল ভবন হতো তাহলে ক্রেতারা সাচ্ছন্দ্য ভাবে কেনাবেচা করতে পারতো। কালক্রমে রূপসী সীতাকুণ্ড মলিন ও হতশ্রী হয়ে যাচ্ছে। সার্বিকভাবে পৌরসভার কাঙ্খিত উন্নয়ন হয়নি। উন্নয়ন যা হয়েছে বা হচ্ছে তা গতানুগতিক, বিশেষ কোন উন্নয়ন পৌরবাসীর ভাগ্যে জোটেনি। যুব সমাজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা নেই। মদ,গাঁজা ও ইয়াবার আসক্ত হচ্ছে উঠতি বয়সী তরুণেরা। তুচ্ছ বিষয়কে ঘিরে ঘটছে খুন-খারাবির ঘটনা। সামাজিক ভারসাম্য বিনষ্ট হতে চলেছে। সুবিচার প্রাপ্তির ক্ষেত্রে পৌরবাসীর মধ্যে অসন্তোষ লেগেই আছে।

আমি যদি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাই তাহলে পৌর সদরের কাঁচা বাজারকে বহুতল ভবন নির্মাণ করবো। রেলওয়ের ডেবার পাড়কে সুন্দর একটি বিনোদনের জন্য পার্ক গড়ে তুলবো। পৌরসভাসদরে ওয়াইফাই জোন গড়ে তোলা হবে। শুধু ট্রেড লাইসেন্স আর সালিস কেন্দ্র নয় সীতাকুণ্ড পৌরসভাকে একটি দূর্ণীতিমুক্ত করে পৌরবাসীর আশা-আকাংঙ্কার প্রাণ কেন্দ্র করার প্রয়োজনীয় উদ্যেগ নেয়া হবে। এছাড়া নির্বাচিত হয়ে ২১টি সমস্যা পরিকল্পনা অনুসারে বাস্তবায়ন করবো।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক পূর্বদেশ পত্রিকার সহ-সম্পাদক দেব দুলাল ভৌমিক, রোটারিয়ান ধন রঞ্জন রায়, সাবেক কানুনগো মছিদ্দৌলা, আর আর টেক্সটাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস্কান্দর হোসেন ও আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ দিদারুল আলম প্রমূখ।

২৪ ঘণ্টা/আবরার/দুলু