আরসিবির জয়

খেলাধুলা ডেস্ক : আইপিএল ২০২০-এর অতি গুরুত্বপূ্র্ণ ম্যাচে এবি ডিভিলায়ার্সের দুর্দান্ত ব্যাটিং তান্ডবে উড়ে গেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ৮২ রানে হারিয়ে লিগ তালিকায় তিন নম্বরে উঠে বিরাট কোহলির আরসিবি৷

বিজ্ঞাপন

শারজায় কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআরের) বিরুদ্ধে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। শুরুটা দুরন্ত করেন দুই আরসিবি ওপেনার দেবদত্ত পাডিক্কল এবং অ্যারোন ফিঞ্চ।

৬৭ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ ভাঙেন আন্দ্রে রাসেল। ৩২ রান করেন পাডিক্কল। ৪৬ রান করেন ফিঞ্চ। এরপর বিরাট কোহলি-এবি ডিভিলিয়ার্স জুটি আরসিবিকে টানতে থাকে।

এরপর অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও এবি ডিভিলিয়ার্সের মধ্যে বড় রানের পার্টনারশিপ হয়। কোহলির ব্যাট সেভাবে জ্বলে উঠতে না পারলেও মাঠের চতুর্দিকে শট মারেন এবিডি।

৩৩ বলে ৭৩ রানে অপরাজিত থাকেন এবি ডিভিলিয়ার্স। ৫টি চার ও ছটি ছক্কায় সাজানো এবিডির ইনিংস। বিরাট কোহলি অপরাজিত থাকেন ৩৩ রানে।

কেকেআর-এর সামনে ১৯৫ রানের টার্গেট দিয়েছিল কোহলি অ্যান্ড কোং৷ এবিডি ঝড়ের পর ওয়াশিংটন সুন্দর, ক্রিস মরিস, চাহলদের দাপুটে বোলিংয়ে কোনঠাসা কেকেআর। রান তাড়া করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১১২ রান তোলে কেকেআর৷

মরিস ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন৷ তবে চাহাল ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান খরচ করে একটি উইকেট তুলে নেন৷ দারুণ বোলিং করেন সুন্দরও৷ ৪ ওভারে মাত্র ২০ রান দিয়ে দু’টি উইকেট নেন৷ ৮২ রানে নাইটদের হারাল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

ম্যাচের সেরা এবি ডি’ভিলিয়ার্স৷ তাছাড়া এ ম্যাচে এবিডি-বিরাট জুটি আইপিএলে তিন হাজার রানের মাইলস্টোন পেরিয়ে গেলেন। অন্যদিকে সাত ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এলেন বিরাট কোহলিরা। চারে নেমে গেল কেকেআর।

২৪ ঘণ্টা/রাজীব