জামিনে মুক্তি পেলেন শফিউল আলম

২৪ ঘণ্টা ডেস্ক : জামিনে মুক্ত হলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ৩৭ নং উত্তর-মধ্যম হালিশহর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর শফিউল আলম। দীর্ঘ ২ মাস কারাভোগের পর সম্প্রতি চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে তিনি মুক্তি পান।

বিজ্ঞাপন

আজ শনিবার (১৭ অক্টোবর) সাবেক কাউন্সিলর শফিউল আলম নিজেই ২৪ ঘণ্টা ডট নিউজকে তথ্যটি নিশ্চিত করেন। কারাগার থেকে মুক্তির পর তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় ২৪ ঘণ্টা ডট নিউজকে তিনি বলেন, সম্পূর্ণ মিথ্যা ও সাজানো মামলা দিয়ে আমাকে হয়রানি করা হয়েছে।

কারাভোগের সময় যারা খোঁজখবর নিয়েছেন তাদের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং দুঃসময়ে তার পাশে থাকার জন্য এলাকাবাসীকে ধন্যবাদ জানান।

জানা যায়, চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি কামাল নামে এক যুবলীগ নেতা বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড থানায় একটি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দায়ের করেন। এতে আসামি করা হয় চসিকের সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউল আলমকে। মামলার পরপরই শফি উচ্চ আদালত থেকে অন্তবর্তীকালীন জামিনে ছিলেন।

জামিনের মেয়াদ শেষে গত ১ সেপ্টেম্বর নির্ধারিত তারিখে হাজিরা দিতে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে শফিউল আলমকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

দীর্ঘ ২ মাস কারাভোগের পর তিনি আবারো জমিনপ্রাপ্ত হয়ে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান।

জানা যায়, শফিউল আলম কাউন্সিলর থাকাকালীন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের দীর্ঘ ৪ বছর অর্থ ও সংস্থাপন সম্পর্কীত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ছিলেন।

এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, শফিউল আল কাউন্সিলর পদে থাকাকালে ৩৭ নং উত্তর-মধ্যম হালিশহর ওয়ার্ডের অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়। বিশেষ করে মাদক ও সমাজবিরোধী কর্মকান্ড তিনি কঠোর হস্তে দমন করেছেন। এ ব্যাপারে এলাকায় তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তাও পেয়েছেন।

শফিউল আলম কুমিরাস্থ আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের বোর্ড অব ট্রাস্টির অতিরিক্ত পরিচালক পদে দায়িত্বরত আছেন বলে জানা গেছে।

২৪ ঘণ্টা/