হিন্দু মহাজোট পটিয়া

চট্টগ্রাম ডেস্ক : বাংলাদেশ সরকারের নিঃস্বার্থ আন্তরিকতা ও কঠোর হুঁশিয়ারির পরেও দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এখনো সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের খবর আসছে। নির্যাতন, হত্যা, ভাংচুর এবং নারীদের শ্লীতাহানি ও জবর দখলের ধখল সহ্য করতে না পেরে দেশের অনেক হিন্দু পরিবার অন্যদেশে পালিয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

তাই হিন্দু সম্প্রদায়ের অস্তিত্ব রক্ষা ও গণতন্ত্রের স্বার্থে মন্দির, ঘর বাড়িতে হামলা করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার পেছনে কারা জড়িত রয়েছে তা খুঁজে বের করতে হবে এবং এসব ঘৃণ্য সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য সরকারের কাছে আহবান জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট নের্তৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট ও ছাত্র মহাজোট পটিয়া উপজেলা শাখার উদ্দ্যেগে আয়োজিত দিনব্যাপী সম্মেলন অনুষ্টানে বক্তারা এ আহবান জানান।হিন্দু মহাজোট পটিয়া

পটিয়া কর্ণফুলি কমিউনিটি সেন্টারে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। ইসকন প্রবর্তক নিত্য সেবক কমিটির হরিলীলাময় দাস ব্রহ্মচারী মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন। সম্মেলন ২০২০ উদ্বোধক ছিলেন অ্যডভোকেট যীশুকৃষ্ণ রক্ষিত।

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট চট্টগ্রাম জেলার সহ সাংগঠনিক সম্পাদক বিজন দে মুন্নার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পটিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. তিমির বরণ চৌধুরী।হিন্দু মহাজোট পটিয়া

তিনি বলেন, দেশের সর্বস্তরের জনতার নিকট অহিংস শান্তির বাণি পৌঁছে দিতে বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোট এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে। পটিয়া উপজেলা শাখায় পেশাগত মানে দক্ষ নের্তৃবৃন্দের সমন্বয়ে বলিষ্ঠ একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামীতে এ কমিটির নের্তৃত্বে উপজেলার সকল হিন্দু সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ করে ধর্ম অবমাননাকারীদের কঠিন শাস্তির আওতায় আনতে সক্ষম হবে বলে তিনি মত প্রকাশ করেন।হিন্দু মহাজোট পটিয়া

সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী মহাসচিব ও মূখপাত্র পলাশ কান্তি দে। তাছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের চট্টগ্রাম জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কৃষ্ণপদ আচার্য্য, সাংগঠনিক সম্পাদক সজল মজুমদার, কক্সবাজার জেলার সভাপতি অসীম চক্রবর্ত্তী, নির্বাহী সভাপতি পলাশ সুশীল, দক্ষিণ জেলা যুব মহাজোটের সভাপতি শিবু আচার্য্য রুবেল, দি কেলিশহর আর্বান কো-অপারেটিভ সো. লি. সহ-সভাপতি সাংবাদিক তাপস দে আকাশ, পটিয়া উপজেলা যুব মহাজোটের সভাপতি লিটন মজকুরি, সম্পাদক রতন দত্ত প্রমুখ।হিন্দু মহাজোট পটিয়া

আয়োজকদের মধ্য থেকে সংগঠনের ভবিষ্যত পরিকল্পনা ও সাংগঠনিক নানা বিষয় তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট পটিয়া উপজেলা সভাপতি দুলাল কান্তি দেব, সা. সম্পাদক শিক্ষক সুমন দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক উদয়রাজ চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক রাজীব ধর ও প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক রাজীব সেন প্রিন্স।

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট যুব ও ছাত্র মহাজোট পটিয়া উপজেলা শাখার বিভিন্ন নের্তৃবৃন্দরা দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠান আয়োজনে সহযোগীতা করেন। পুরো অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন রনী চৌধুরী।

২৪ ঘণ্টা/রাজীব