নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর আইসিসি ওয়ানডে অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে রাজত্ব ফিরে পেলেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। ৩৭৩ রেটিং নিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে সবার উপরে রয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব লুকানোয় নিষেধাজ্ঞা পেয়েছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। যার কারণে বাদ পড়েছিলেন আইসিসির র‍্যাঙ্কিং থেকে। ঠিক এক বছর পরেই আবারো হারানো সেই শীর্ষ স্থান ফিরে পেলেন এই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। সম্প্রতি পাকিস্তান বনাম জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজ শেষ হওয়ার পর অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ের তালিকা প্রকাশ করেছে আইসিসি।

সে তালিকায় সাকিবের আশেপাশেও নেই অন্য কোন ক্রিকেটার। আইসিসির অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে ৩৭৩ রেটিং নিয়ে নিজের হারানো স্থানে ফিরেছেন এই অলরাউন্ডার। আইসিসির প্রকাশিত তালিকায় সেরা দশে জায়গা করেছেন জিম্বাবুয়ের অলরাউন্ডার উইলিয়ামস। ২৩৮ রেটিং নিয়ে দশে রয়েছেন এই জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার।

এছাড়াও র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের। ২৭৬ রেটিং নিয়ে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে সাকিবের পরেই রয়েছেন আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী। ৩০১ রেটিং নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে তিনি। তিনে রয়েছেন আরেক ইংলিশ ক্রিকেটার ক্রিস ওকস। সেরা পাঁচের মধ্যে রয়েছেন পাকিস্তানের অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিম। তার রেটিং ২৭১।

আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাংকিং (৪ নভেম্বর ২০২০ আপডেট)

১. সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ) – ৩৭৩ রেটিং

২. মোহাম্মদ নাবী (আফগানিস্তান) – ৩০১ রেটিং

৩. ক্রিস ওকস (ইংল্যান্ড) – ২৮১ রেটিং

৪. বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড) – ২৭৬ রেটিং

৫. ইমাদ ওয়াসিম (পাকিস্তান) – ২৭১ রেটিং

৬. কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম (নিউজিল্যান্ড) – ২৬৫ রেটিং

৭. রশিদ খান (আফগানিস্তান) – ২৫৩ রেটিং

৮. মিচেল স্যান্টনার (নিউজিল্যান্ড) – ২৫১ রেটিং

৯. রবীন্দ্র জাদেজা (ভারত) – ২৪৬ রেটিং

১০. শন উইলিয়ামস (জিম্বাবুয়ে) – ২৩৮ রেটিং

২৪ ঘণ্টা/রিহাম