রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বাস পোড়ানোর ঘটনায় করা মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, দলটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির সদস্য প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন, ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেনসহ ১৩৮ জন নেতাকর্মীকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. হাবিবুল গনি ও বিচারপতি মো. রিয়াজউদ্দিন খানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

বিএনপি নেতার্মীদের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ও ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য এসব মামলা করা হয়েছে। আজ শুনানি শেষে আদালত ১৩৮ জন আসামিকে জামিন দিয়েছেন।’

এর আগে গত রোববার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ জামিন আবেদন করেন বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

পরে ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, বিএনপির ৩৮ সিনিয়র নেতাসহ পাঁচ শতাধিক কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ঢাকা ১৮ আসন উপনির্বাচনের প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ।

ব্যারিস্টার কায়সার কামাল জানিয়েছিলেন, এই মামলায় যাঁদের আসামি করা হয়েছে, তাঁদের একজন ইশরাক হোসেন, যিনি আইসোলোশনে ছিলেন। অথচ তাঁকে গাড়ি পোড়ানোর মামলায় আসামি করা হয়েছে। আরেকজন আসামি জাহাঙ্গীর হোসেন উত্তরায় নির্বাচনি কাজে ব্যস্ত সময় পার করেছেন। অথচ তাঁকে খিলক্ষেত থানায় প্রধান আসামি করা হয়েছে।

২৪ ঘণ্টা/রিহাম