কেন্দ্রীয় যুবলীগের নব নির্বাচিত তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চট্টগ্রামর কৃতি সন্তান মীর মো:মহিউদ্দিন ভালোবাসায় সিক্ত হলেন নেতাকর্মীদের।

বিজ্ঞাপন

আজ শনিবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে নগরীর পুরাতন রেল স্টেশন এলাকায় বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চট্টগ্রাম উত্তর, দক্ষিণ, মহানগর আয়োজিত গণসংবর্ধনায় তিনি নেতাকর্মীদের এমন ভালোবাসায় সিক্ত হন। কয়েক হাজার নেতাকর্মীর জমায়েতে ভরপুর লাভ করে রেলস্টেশন মাঠ। স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয় পুরো এলাকা। ফুল হাতে প্রিয় নেতাকে বরণ করে নেন সবাই।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক আ ম ম টিপু সুলতানের সভাপতিত্বে ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয় গণসংবর্ধনা।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব মহিউদ্দিন বাচ্চু। বিশেষ অতিথি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি এস এম আল মামুন।

সংবর্ধিত নব নির্বাচিত কেন্দ্রীয় যুবলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মীর মো. মহিউদ্দিন বলেন, দীর্ঘ একবছর নানাভাবে যাচাইবাচাই করে স্বচ্ছ যাদের পেয়েছে তাদের দিয়ে কমিটি গঠন করেছে। এই কমিটিতে আমাকে জায়গা দিয়েছে, এজন্য কৃতজ্ঞতা। নতুন কমিটি গঠন করার পর অনেক আনন্দ মিছিল হয়েছে। এখানে এতো বড় মিছিল হয়েছে, কোথাও এমন মিছিল হয়নি। যুব সমাজের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।

যুব সমাজকে নিয়ে কাজ করার একাগ্রতার কথা জানিয়ে মীর মো. মহিউদ্দিনবলেন, বিশেষ একটি সময়ের মধ্যে এই কমিটি ঘোষণা দেয়া হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে আধুনিক জাযগায় নিয়ে যেতে চায়। এই যাত্রায় যুব সমাজকে সামিল হতে হবে। যুব সমাজকে নেতৃত্ব দিতে হবে আগামীর পথচলায়।

সংবর্ধনা সভায় চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের আহবায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু বলেন, মীর মহিউদ্দিন আমাদের গর্বিত সন্তান। তার নেতৃত্বে চট্টগ্রামের এই জনপদে যুবকদের সুপ্ত জাগরণ হবে। আমরা মীর মহিউদ্দিনকে স্বাগত জানাই। সম্বৃদ্ধ দেশগড়ার নেতৃত্বে মীর মহিউদ্দিনকে আমরা পেয়েছি। আশা করি তিনি আমাদের স্বপ্নকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবেন।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক আ ম ম টিপু সুলতান বলেন, মীর মহিউদ্দিন বীরের বেশে রাজনীতি করে। আগামীকে সাম্প্রদায়িক আস্ফোলন, অপশক্তির বিরুদ্ধে এবং দারিদ্রমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত দেশ নির্মানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে যুব সমাজকে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম রাশেদুল আলম, খাগড়াছড়ি জেলা যুবলীগের সভাপতি জয়ন কুমার ত্রিপুরা, রাঙামাটি জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য দেবাশীষ পাল দেবু, গাজী জাফর উল্লাহ্, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের সদস্য হাসান মুরাদ বিপ্লব, শাখাওয়াত হোসেন স্বপন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য শেখ ফরিদ, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক হাজী সেলিম উদ্দিন, মহানগর যুবলীগের সদস্য খোরশেদ আলম রহমান, তানভীর আহমেদ রিংকু, শিবু প্রসাদ চৌধুরী, পটিয় উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক হাসান উল্লাহ, চন্দনাইশ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক তৌহিদুল আলম, যুগ্ম আহ্বায়ক এ. এস. এম. মুসা তসলিম, যুগ্ম আহ্বায়ক মুরিদুল আলম মুরাদ, চন্দনাইশ পৌরসভা যুবলীগের সভপতি এম. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম. লোকমান হাকিম, আমিনুল ইসলাম কায়সার প্রমুখ।