করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউঢের প্রকোপ থেকে চট্টগ্রাম মহানগরের জনসাধারণকে সচেতন করতে জেলা প্রশাসনের অভিযান এবং মাস্ক বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এর অংশ হিসেবে আজ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম আলমগীর, উমর ফারুক, আশরাফুল আলম ও গালিব চৌধুরীর নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ছিন্নমূল মানুষ ও রিক্সাওয়ালাদের মাঝে প্রায় ৫০০ মাস্ক বিতরণ করা হয়। পাশাপাশি অবহেলা করে যারা মাস্ক পরেনি এমন ৬৮ জনকে ব্যাক্তিকে ২০৪৭০ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুল আলম নগরীর আন্দরকিল্লাহ ও চকবাজার এলাকায় অভিযানে ২৮ জন ব্যাক্তিকে ১৭১০০ টাকা অর্থদণ্ড করেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক কাজির দেউড়ী ও লালখান বাজারে ছিন্নমূল মানুষ ও রিক্সাওয়ালাদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন ও ২০ ব্যক্তিকে ১৫০০ টাকা অর্থদণ্ড করেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী জিইসি মোড় এলাকায় গণ পরিবহনে অভিযান চালিয়ে ১৪ ব্যাক্তিকে ১৪০০ টাকা অর্থদণ্ড করেন ও এস এম আলমগীর পরিচালিত মোবাইল কোর্ট বায়েজিদ এলাকায় ৬ জনকে ৪৩০ টাকা অর্থদণ্ড দেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক বলেন, অনেক মানুষ আছেন যারা সচেতন নয় এবং মাস্কও কিনতে পারেনা তাদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয় এবং শপথ পড়ানো হয় যাতে তারা বাইরে বের হলে মাস্ক পরিধান করে।

তিনি আরও বলেন, টানা অভিযানের ফলে মাস্ক পরার প্রবনতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে তবুও কিছু মানুষ অবেহেলা করে মাস্ক পরেনা তাদের অনেককেই হাজার টাকা করেও অর্থদণ্ড করা হয়েছে।