তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেই দাপুটে জয়ে সিরিজ নিজেদের করে নিলো অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারত হেরেছে ৫১ রানে। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সবাই দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন। ভারতের কোহলি-রাহুল লড়াই করলেও হার এড়াতে পারেননি।

বিজ্ঞাপন

সিডনিতে বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বলের সাথে পাল্লা দিয়েই রান তুলছিলেন শিখর ধাওয়ান ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল। তবে কেউই ইনিংস বড় করতে পারেননি। শ্রেয়াশ আইয়ারও আশা জাগিয়েও ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ হন। ভারতের পক্ষে সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েছিলেন দলীয় অধিনায়ক ও সহ-অধিনায়ক। তবে তা কেবল হারের ব্যবধান কমিয়েছে।

সফরকারীদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৯ রান করেন কোহলি। তার ৮৭ বলের ইনিংসটির সমাপ্তি টানেন জস হ্যাজলউড। কোহলির ইনিংসে ছিল ৭টি চার ও ২টি ছয়। অপরদিকে, সহ-অধিনায়ক রাহুল করেন ৬৬ বলে ৭৬ রান। অ্যাডাম জাম্পার শিকার হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৪টি চার ও ৫টি ছক্কা।

নির্ধারিত ৫০ ওভার খেলে ভারত সংগ্রহ করতে পারে ৩৩৮ রান। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে হ্যাজলউড ও জাম্পা ২টি করে এবং প্যাট কামিন্স ৩টি উইকেট শিকার করেন। তবে বাজে দিন গিয়েছে মিচেল স্টার্কের। ৯ ওভারে তিনি খরচ করেছেন ৮২ রান।

৫১ রানের এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে নিজেদের করে নিলো অস্ট্রেলিয়া। ফিল্ডিংয়ের সময়ে চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নার।

তার আগে ব্যাটিং করে ৫০ ওভারে অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ করে ৩৮৯ রান। অস্ট্রেলিয়ার উদ্বোধনী জুটিতে ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ যোগ করেন ১৪২ রান। ৬০ রান করা ফিঞ্চকে আউট করে জুটি ভাঙেন মোহাম্মদ শামি। ফিঞ্চের বিদায়ের পরে আর বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকেননি ওয়ার্নারও। শতকের আশা জাগিয়েও ৮৩ রানে রান আউটে কাটা পড়েন তিনি। তার ৭৭ বলের ইনিংসটিতে ছিল ৭টি চার ও ৩টি ছক্কা।

অপরপ্রান্তে প্রথম ম্যাচেরই পুনারাবৃত্তি করেন স্টিভ স্মিথ। প্রথম ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও ৬২ বলে শতক হাঁকান তিনি। ভারতীয় বোলারদের উড়িয়ে স্মিথ খেলেন সব দৃষ্টি নন্দন শট। হার্দিক পান্ডিয়ার শিকার হওয়ার আগে করেন ১০৪ রান। তার ৬৪ বলের ইনিংসটিতে ছিল ১৪টি চার ও ২টি ছক্কা। ফেরার আগে মারনাস লাবুশানের সাথে গড়েন ১৩৬ রানের জুটি।

স্মিথ বিদায় নিলেও অস্ট্রেলিয়ার রানের চাকা ঘোরায় কোনো পরিবর্তন আসেনি। আজকেও ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন ম্যাক্সওয়েল। ৬১ বলে ৭০ রান করে জাসপ্রীত বুমরাহের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন লাবুশানে। ম্যাক্সওয়েলের সাথে ৮০ রানের জুটি গড়েছিলেন তিনি।

৫০ ওভারে অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ করেছে ৩৮৯ রান। ম্যাক্সওয়েল অপরাজিত থাকেন ৬৩ রানে। তার ২৯ বলের টর্নেডো ইনিংসে ছিল ৪টি করে চার ও ছক্কা।

ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৭৯ রান খরচ করেন বুমরাহ। এছাড়া শামি ৯ ওভারে ৭৩ রান, নবদ্বীপ সাইনি ৭ ওভারে ৭০ রান ও যুযবেন্দ্র চাহাল ৯ ওভারে ৭১ রান খরচ করেছেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া ৩৮৯/৪ (৫০ ওভার)
স্মিথ ১০৪, ওয়ার্নার ৮৩, লাবুশানে ৭০, ম্যাক্সওয়েল ৬৩*, ফিঞ্চ ৬০;
হার্দিক ১/২৪।

ভারত ৩৩৮/৯ (৫০ ওভার)
কোহলি ৮৯, রাহুল ৭৬, আইয়ার ৩৮, শিখর ৩০, হার্দিক ২৮, মায়াঙ্ক ২৮;
কামিন্স ৩/৬৭, হ্যাজলউড ২/৫৯, জাম্পা ২/৬২;

অস্ট্রেলিয়া ৫১ রানে জয়ী।