নাগরিকসেবা প্রাপ্তির স্বার্থে পৌরকর পরিশোধ করুন: চসিক প্রশাসক

  |  বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১০, ২০২০ |  ৮:২৩ অপরাহ্ণ
24ghonta-google-news

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন নাগরিকসেবা সুনিশ্চিত করার স্বার্থে নগরবাসীকে হালনাগাদ পৌরকর পরিশোধের আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম, আলোকায়ন, রাস্তাঘাটের উন্নয়ন ও মেরামতের মত নাগরিক পরিসেবা প্রদানের মাধ্যমে নগরীকে সচল রাখতে পৌরকর প্রদান করা ছাড়া বিকল্প কোন পথ নাই। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতা প্রদানসহ আনুসাঙ্গিক অন্যান্য খাতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরশেনের প্রতিমাসে খরচ হয় প্রায় ২৫ কোটি টাকা। এখন যদি নগরবাসী তাদের পৌরকর প্রদান না করেন তাহলে কর্পোরেশন কি করে চলবে?

24ghonta-google-news

আধুনিক বিশ্বে সুসভ্য নাগরিক মাত্রই কর প্রদান করেন। আমার প্রিয় চট্টগ্রাম নগরীর নাগরিকগণও তাদের পৌরকর হালনাগাদ পরিশোধ করবেন এটাই আমার প্রত্যাশা। কর প্রদানে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সারচার্জ মওকুফের সুবিধা দেয়া আছে। আশাকরি নগরবাসী এ সুযোগ গ্রহন করবেন।

তিনি আজ নগরীর দুই নাম্বার গেইটস্থ চিটাগাং শপিং কমপ্লেক্স চত্বরে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরশেন রাজস্ব সার্কেল-১ এর অধীনে স্পট হোল্ডিং টেক্স সংগ্রহ ও ট্রেড লাইসেন্স প্রদানে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে কর্পোরেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা সাহেদা ফাতেমা চৌধুরী (সিনিয়র সহকারী সচিব)’র সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে প্রশাসকের একান্ত সচিব মো.আবুল হাশেম (সিনিয়র সহকারী সচিব) কর কর্মকর্তা (হোল্ডিং) মহিউদ্দিন আহমদ চৌধুরী, জসীম উদ্দীন (লাইসেন্স) উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন আরো বলেন, পৌর করের পাশাপাশি কর্পোরেশন থেকে ট্রেড লাইসেন্স ইস্যু নেয়া একজন ব্যবসায়ীর দায়িত্ব। ব্যবসার প্রথম স্বীকৃতি হলো ট্রেড লাইসেন্স। ট্রেড লাইসেন্স না থাকা মানে ব্যবসার কোন স্বীকৃতি নাই। ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করা মানে অনেকটা ফুটপাথে অবৈধভাবে হকারি করার মত। কাজেই ব্যবসায়ী ভাইদের প্রতি অনুরোধ আপনারা সারচার্জ মওকুফের সুযোগ নিয়ে আপনাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স করে ফেলুন।

তিনি পৌরকর ও ট্রেড লাইসেন্স প্রদানের ক্ষেত্রে যাতে কোন গ্রাহককে ভোগান্তি ও হয়রানির মুখোমুখি হতে না হয় সে বিষয়ে রাজস্ব বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিকভাবে সেবা প্রদান করতে বলেন।

প্রশাসক বলেন, যে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী গ্রাহক সন্তুষ্ঠি অনুযায়ী ভালোভাবে কাজ করবেন তাদের পুরস্কৃত করা হবে। আর যারা অন্যায়-জুলম করে গ্রাহকদের হয়রানি করছেন,এরকম অভিযোগের প্রমান পেলে তাদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে কঠোরতম শাস্তির ব্যবস্থা। কাজেই সৎভাবে কাজ করে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সুনাম ও ভাবমুর্তি উজ্জল করবেন অপনাদের কাছে এটাই আমার প্রত্যাশা।

তিনি চট্টগ্রাম শহরের সুবিধাভোগী চট্টগ্রাম বন্দর, রেলওয়ে, কাস্টমসসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান এবং বেসরকারি খাতের বড় শিল্প গ্রুপ,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মিল-কারখানাকে নগরীর উন্নয়নের স্বার্থে ও উন্নত সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিতে ১ শাংশ করে সার্ভিস চার্জ প্রদান করা উচিত বলে মত দেন।

সুজন এসময় নিয়মিত আয়কর প্রদানের পরও ট্রেড লাইসেন্স প্রদানের ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের সরকারের রাজস্ব বিভাগের নিয়ম ও আইনের কারণে যে অতিরিক্ত আয়কর ৩ হাজার টাকা প্রদান করা লাগে,তা মওকুফে সরকারি রাজস্ব বোর্ড ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে উপ আনুষ্ঠানিক পত্র প্রেরণ করবেন বলে ঘোষণা দেন। তিনি বলেন এই ৩ হাজার টাকার আয়কর কর্পোরেশন পায় না। কিন্তু এ নিয়ে ব্যবসায়িরা কর্পোেরশনকে ভুল বুঝেন।

পরে পৌর কর প্রদানকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মধ্যে হাজী টেক্সাটাইলের পক্ষে মো. জয়নাল আবেদীন ৩লাখ ১৪ হাজার ৫’শ ১৯ টাকা, শেভরণ ক্লিনিক ২লাখ ১২ হাজার ৫’শ, ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম রব্বানি পৌরকর প্রদান ও এক্সপোার্ট ইমপোর্ট ব্যাংকের পক্ষে মোহাম্মদ ইলিয়াছ, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লি.ও রবি আজিয়াটা স্পট ট্রেড লাইসেন্স প্রদান করায় তাদের প্রতিনিধিদের ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন।

এসময় চিটাগাং শপিং কমপ্লেক্স ব্যবসয়িক মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ প্রশাসককে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

24ghonta-google-news
24ghonta-google-news