দুবাইয়ে গ্লোব সকার এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে চলতি শতাব্দীর সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। শতাব্দীসেরা কোচের খেতাব জিতেছেন ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটির স্প্যানিশ ম্যানেজার পেপ গার্দিওলা।

বিজ্ঞাপন

রোববার রাতে হওয়া এ অনুষ্ঠানে চির প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি ও ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার রোনালদিনহো গাউচোকে পেছনে ফেলে এ পুরস্কার জিতেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। শতাব্দীসেরা খেলোয়াড়ের এ পুরস্কারের দৌড়ে ছিলেন মিসরের মোহামেদ সালাহও।

তবে সবাইকে পেছনে ফেলে ২০০১ থেকে ২০২০ পর্যন্ত সময়ের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন রোনালদোই। পুরস্কারের জন্য বিবেচিত এ সময়ে তিনি জিতেছেন পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন লিগ, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে তিনটি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে দুটি লা লিগা, জুভেন্টাসের হয়ে দুটি সিরি আ, দেশের হয়ে একটি ইউরো কাপ ও উয়েফা নেশনস লিগসহ অনেক শিরোপা।

সশরীরে উপস্থিত থেকে পুরস্কারটি গ্রহণ করেছেন রোনালদো। যেখানে তিনি বলেন, ‘যেকোনও স্বীকৃতি পাওয়াই অনেক আনন্দের বিষয়। লম্বা সময় ধরে সাফল্যের শীর্ষে থাকা খুব সহজ কাজ নয়। আমি সত্যিই গর্বিত। তবে দল, ভালো কোচ এবং ক্লাব ছাড়া আমার এ সফলতা সম্ভব ছিল না।’

পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আজকের পুরস্কার পাওয়ার চেয়ে বেশি খুশি আর হতে পারে না। পেশাদার ক্যারিয়ারের ২০ বছর পূর্তিতে এমন একটা পুরস্কার সত্যিই আনন্দের। গ্লোব সকার প্লেয়ার অব দ্য সেঞ্চুরি- অনেক গর্বের সঙ্গে এ স্বীকৃতিটা গ্রহণ করছি আমি।’

এই এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না শতাব্দীসেরা কোচের খেতাব জেতা পেপ গার্দিওলা। দুইবার চ্যাম্পিয়নস লিগ, স্প্যানিশ লা লিগা, জার্মান বুন্দেসলিগা ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগসহ অনেক শিরোপা জেতা এ কোচ এক ভিডিওবার্তার মাধ্যমে এই পুরস্কার গ্রহণ করেছেন।

এদিকে গ্লোব সকারের ২০২০ সালের বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ ফরোয়ার্ড রবার্ট লেওয়ানডোস্কি। একইভাবে বর্ষসেরা কোচের খেতাব জিতেছেন বায়ার্নের ম্যানেজার হান্সি ফ্লিক এবং বর্ষসেরা ক্লাবের পুরস্কার জিতেছে বায়ার্ন মিউনিখই।

এছাড়া শতাব্দীর সেরা ক্লাব নির্বাচিত হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। গ্লোব সকার এওয়ার্ডে ২০১১ সাল থেকে বর্ষসেরা ফুটবলার, কোচ, ক্লাবসহ নানান ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেয়া হচ্ছে।