যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবনে নজিরবিহীন হামলার পর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এবার তারা নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের দিনে ফের ওয়াশিংটনে হাজির হওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছে। তাই সহিংসতার আশঙ্কায় সতর্ক করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই)।

বিজ্ঞাপন

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন বাইডেন। ওই দিনই ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা দেশটির ৫০টি অঙ্গরাজ্যে ও ওয়াশিংটন ডিসিতে সশস্ত্র গোষ্ঠী সংগ্রহ করার পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছে এফবিআই।

এদিকে, সোমবার (১১ জানুয়ারি) নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সাংবাদিকদের বলেছেন যে তিনি মার্কিন ক্যাপিটালের বাইরে শপথ নেওয়ার ব্যাপারে ভীত নন।

নির্বাচনের ফলাফলের বিরোধিতা করে গত ৬ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উগ্রপন্থী সমর্থকরা যে মারাত্মক হামলা চালিয়েছিল, তার মাত্র দুই সপ্তাহ পরে জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস উভয়ই ক্যাপিটল ভবনের বাইরে শপথ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

দেশটির আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মনে করছে গত ৬ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসিতে ট্রাম্পের হাজারো সমর্থক যে তাণ্ডব চালিয়েছে এ ঘটনার আর পুনরাবৃত্তি হবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটির ভারপ্রাপ্ত প্রধান চাদ ওল্ফ সোমবার (১১ জানুয়ারি) বলেছেন, তিনি মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসকে বুধবার (২০ জানুয়ারি) শপথ অনুষ্ঠানের আগে বিশেষ অভিযান শুরু করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। যাতে ৬ জানুয়ারির ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয়।

দেশটির নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বলেছেন, শপথ অনুষ্ঠানটির নিরাপত্তার জন্য আরও ১৫ হাজার ন্যাশনাল গার্ড সরবরাহ করা যেতে পারে।

উল্লেখ, গত ৬ জানুয়ারি নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয় অনুমোদনের দিনে ক্যাপিটল হিলে নজিরবিহীন তাণ্ডব চালায় ট্রাম্প সমর্থকরা। পুলিশের সঙ্গে তাদের তুমুল সংঘর্ষ হয়। এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ প্রাণ হারায় ৫ জন।