মিরপুরে দ্বিতীয় টেস্টে নাঈম হাসান এবং তাইজুলের বোলিং নৈপুণ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১১৭ রানে অল আউট করলো বাংলাদেশ। বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট লাভ করেন তাইজুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

৯৬ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে গিয়েছিল ক্যারিবীয়রা। সফরকারীদের বাকি চার উইকেট তুলতে বেশি সময় নেয়নি বাংলাদেশ। দলীয় ১০৪ রানের মাথায় জশুয়া ডা সিলভাকে সাজঘরে ফেরান তাইজুল ইসলাম। আগের ইনিংসে ব্যাট হাতাএ দুর্দান্ত করা আলজারি জোসেফ দ্বিতীয় ইনিংসে বড় কিছু করতে পারেনি। ৮ বলে ৯ রান করে তাইজুলের বলে ফিরেন যান এই ক্যারিবীয়।

ব্যাট হাতে দ্বিতীয় ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে হাল ধরেছিলেন এনক্রুমাহ বনার। ব্যক্তিগত ৩৮ রান করা বনারকে থামান নাঈম হাসান। দলীয় ১১৬ রানে নবম উইকেটের পতন হলে দলীয় মাত্র এক রান যোগ করেই নাঈমের বলে মুশফিকের হাতে ক্যাচ তুলে দেন রাহকিম কর্ণওয়েল। ফলে ১১৭ রানেই শেষ হয়ে যায় ক্যারিবীয়দের ইনিংস।

বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ চারটি উইকেট লাভ করেন তাইজুল। ২১ওভার বোলিং করে ৩৬ রান দিয়ে চার উইকেট নেন এই বাঁহাতি স্পিনার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট লাভ করেন নাঈম। ১৫.৫ ওভার বোলিং করে ৩৪ রান দিয়ে তিন উইকেট লাভ করেন তিনি। তাইজুল, নাঈম বাদে বল হাতে দুটি আবু জায়েদ রাহী এবং একটি করে উইকেট নেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ক্যারিবীয়দের হতে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৩৮ রানই আসে বনারের ব্যাট থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ রান করে জশুয়া ডা সিলভা এই টেস্ট জিততে বাংলাদেশের লক্ষ্যমাত্রা ২৩১ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (১ম ইনিংস) ৪০৯ (বনার ৯০, জশুয়া ডা সিলভা ৯২: আবু জায়েদ ৪-৯৮

বাংলাদেশ (১ম ইনিংস) ২৯৬ (লিটন ৭১, মিরাজ ৫৭, মুশফিক ৫৪ঃ কর্ণওয়েল ৫-৭৪

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (২য় ইনিংস) ১১৭ (বনার ৩৮, জশুয়া ডা সিলভা ২০ঃ তাইজুল ৪-৩৬।