কামরুল ইসলাম দুলু : প্রতিবাদের ভাষা কখনো কখনো ব্যতিক্রম হয়। আবার সচেতনতামূলক কাজগুলো ব্যক্তি উদ্যোগেও হয়ে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় “পাটকল কোন দর্জিখানা নয়, বন্ধ করার চক্রান্ত থামাও” প্রতিবাদ স্বরূপ এই স্লোগান নিয়ে দেশের জিরো পয়েন্ট তেতুলিয়া থেকে পায়ে হেঁটে সীতাকুণ্ডে এসেছেন আশরাফি আরাফাত আকাশ নামের এক যুবক।

বিজ্ঞাপন

তিনি সাম্প্রতিক বন্ধ হয়ে যাওয়া সীতাকুণ্ডে চারটি রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকলের গেইটে চটের তৈরী ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানান। আকাশ গত ২ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার ভোর ৬ টা বাজে সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ার জিরো পয়েন্ট থেকে হেঁটে রওনা দেন। ২১ দিনে আজ সীতাকুণ্ডে পৌঁছেন।

আকাশ বলেন, দেশে একই সময়ে ২৫ টি রাষ্ট্রায়াত্ব পাটকল বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। যার ফলে হাজার হাজার মেহনতি শ্রমিক হঠাৎ করে বেকার হয়ে পড়েন। তারা এখন পরিবার পরিজন নিয়ে মানবতার জীবন-যাপন করছেন। আর এর প্রতিবাদ স্বরূপ আমি পায়ে হেঁটে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ পর্যন্ত যাবো। এবং যতগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়া জুট মিল আছে সবগুলোর গেইটে অবস্থান নেবো। টেকনাফ পৌঁছাতে সময় লাগবে প্রায় একমাস। আশরাফি আরাফাত আকাশ রংপুর জেলার কোতোয়ালী থানার মহাদেবপুর গ্রামের মোঃ মুসা মিয়ার ছেলে। তিনি এর আগেও বিভিন্ন প্রতিবাদ ও সচেতনতামূলক পদযাত্রা করেছেন বলে জানান। তিনি সীতাকুণ্ডে পৌঁছলে সামাজিক সংগঠন স্মাইল বাংলাদের এর পরিচালক নজরুল ইসলাম জয় সহযোগিতা করেন।