কিংবদন্তী ক্রিকেট কার্নিভ্যাল সিজন-২’র চ্যাম্পিয়ন “মিরপুর কিংস”

228

রাজধানীর শ্যামলীস্থ শ্যামলী ক্লাব ক্রিকেট মাঠে আজ শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কিংবদন্তী ক্রিকেট কার্নিভ্যাল সিজন-২ এ “মিরপুর কিংস” ও “টিম ব্যাকবেঞ্চারস” এর মধ্যে অনুষ্ঠিত ফাইনালে “মিরপুর কিংস” ৫ উইকেটে “টিম ব্যাকবেঞ্চারস” কে পরাজিত করে প্রথম বারের মত টুর্নামেন্টের শিরোপা জয় করে।

এর আগে সকালে অনুষ্ঠিত প্রথম সেমিফাইনালে “টিম ব্যাকবেঞ্চারস” ২৯ রানে “কিংস অব কেরানীগঞ্জ” কে পরাজিত করে। অপর সেমিফাইনালে মিরপুর কিংস ৫ রানে নওয়াব অব ওল্ড ঢাকা কে পরাজিত করে।

আমরাই কিংবদন্তী (এসএসসি ২০০০ এবং এইচএসসি ২০০২) একটি অনলাইন ভিত্তিক ফেসবুক গ্রুপ, যেখানে সারা বাংলাদেশের এসএসসি ২০০০ এবং এইচএসসি ২০০২ সালের ছাত্র-ছাত্রীদের একত্র করে একক প্লাটফর্মে এনে মানব কল্যাণে কাজ করার প্রয়াসে এগিয়ে চলেছে।

বন্ধুদের একত্রিত করার প্রয়াসের ধারাবাহিকতা থেকে দ্বিতীয়বারের মত সারা বাংলাদেশ থেকে ১৬ টি দল নিয়ে গত ৫, ১২, ১৩, ১৯, ২০ ও ২১ ফেব্রুয়ারি কিংবদন্তী ক্রিকেট কার্নিভ্যাল সিজন ২ এর গ্রুপ পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

এই আয়োজনে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ওপেনার জাভেদ ওমর বেলিম গুল্লু, “ব্রান্ড হাউজ” এর শাফিন ইয়ারা ও “আমরাই কিংবদন্তী” গ্রুপের এডমিন ও ক্রিয়েটর নাজমুল হোসেন সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজনের অংশগ্রহন কারী দল গুলো ছিলঃ
গ্রুপ- এঃ
১। ইউনাইটেড ফ্রেন্ড অফ মহেশপুর
২। ঢাকা ১২০৬ কে সি
৩। ডি এম স্মেসারস
৪। মিরপুর চেলেঞ্জারস
গ্রুপ- বিঃ
১। মিরপুর কিংস
২। উত্তরা ইউনাইটেড ০০-০২
৩। টিম বেকবেঞ্চারস
৪। ব্রাহ্মানবাড়িয়া বার্নারস
গ্রুপ- সিঃ
১। নওয়াব অব ওল্ড ঢাকা
২। চেলেঞ্জেস অফ রিস্ক টেকার
৩। তেজগাঁও রংপুর লায়ন্স
৪। কিংস অফ কেরানীগঞ্জ
গ্রুপ- ডিঃ
১। মিরপুর ফ্রেন্ডস কে সি
২। আলিভ চট্টগ্রাম উইজার্ড
৩। মাইটি সিক্সার’স
৪। স্টার অব কুষ্টিয়া

টুর্নামেন্টের ফেয়ার প্লে ট্রফি পায় চট্টগ্রামের দল “চট্টগ্রাম উইজার্ড”।

টুর্নামেন্ট এর সেরার কৃতিত্বের জন্য ম্যান অব দ্যা টুর্নামেন্ট পুরস্কার পায় টিম ব্যাকবেঞ্চারস এর অলরাউন্ডার জাহিদ ও অন্যতম ভ্যালুইয়েবল প্লেয়ার ও ম্যান অব দা ফাইনাল এর পুরস্কার পায় মিরপুর কিংস এর অধিনায়ক মিনহাজুল হক এজাজ।

দেশজুড়ে বন্ধুদের অংশগ্রহনে আয়োজিত এই ক্রিকেট খেলার মাধ্যমে নিজেদের ভাতৃত্ববোধ ও সম্প্রীতি বৃদ্ধির মাধ্যমে পরবর্তী সময়ে মানব কল্যাণে কাজ করাই এই আয়োজনের মূল লক্ষ্য ছিল।

উল্লেখ্যযে “মানবতার কল্যাণে কিংবদন্তী সবখানে” এই নীতিকথা থেকেই ১৫ নভেম্বর ২০১৭ থেকে যাত্রা শুরু করে বর্তমানে ৩৭ হাজার সদস্যের পরিবারটি আগামীর পথে এগিয়ে চলেছে।
এই গ্রুপটি এর আগেও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিজেদের নিয়োজিত রেখেছিল; তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে দেশ জুড়ে পরিচ্ছন্নতা ও জনসচেতনতা, প্রতিবন্ধী শিশুদের সহায়তা কার্যক্রম, ফ্রি হেলথ ক্যাম্প, অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহ ও খাবার বিতরণ, বৃদ্ধাশ্রমে চিকিৎসা ও খাবার সরবরাহ এবং রক্তদান কর্মসূচীসহ বিবিধ কার্যক্রম।

একটি অনলাইন ভিত্তিক গ্রুপ হয়েও বন্ধুরা শুধু অনলাইনেই সীমাবদ্ধ না থেকে দেশের, সমাজের বিভিন্ন কাজে এগিয়ে এসেছে বন্ধুদের গ্রুপটি। এর সাথে যুক্ত হয়েছে সমাজের কিছু সচেতন সু-নাগরিক, যারা এই গ্রুপটি কে প্রতিনিয়ত ভালো কাজে উৎসাহ দিচ্ছে। ধারাবাহিক ভাবে গ্রুপের পিছিয়ে পড়া সদস্যসহ দেশের প্রতিটি অঞ্চলের অসহায় মানুষদের পাশে চিকিৎসা সেবা সহ সকল মৌলিক সেবা পৌঁছে দিতে পরিকল্পনা করছে এই গ্রুপের সদস্যরা।