বোয়ালখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৪জন চিকিৎসক ও ৫ জন নার্সের কর্মস্থল অন্যত্র। প্রেষণ সুবিধায় তারা দেশের অন্যান্য হাসপাতালে কর্মরত রয়েছেন বোয়ালখালীতে পদায়নের পর থেকে।

বিজ্ঞাপন

এতে সেবা বঞ্চিত হচ্ছেন বোয়ালখালীবাসী। তাদের পদগুলো শূণ্য না হওয়ায় নতুন করে নিয়োগও দিচ্ছেন না কর্তৃপক্ষ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, কড়লডেঙ্গা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিক্যাল অফিসার হিসেবে নিযুক্ত ডা. আলী আজগর এবং সারোয়াতলী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্রের সহকারী সার্জন ডা. কৌশিক জামান কাজল প্রেষণে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে কর্মরত রয়েছেন। আমুচিয়া ইউনিয়নের ধোরলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিক্যাল অফিসার ডা. মোকাম্মেল ইলাহী কর্মরত রয়েছেন রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং পোপাদিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিক্যাল অফিসার ডা. নাভিলা তাসনীম কর্মরত রয়েছেন স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

এছাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ২জন নার্স, বান্দরবান নার্সিং কলেজে ১জন নার্স, চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর সংযুক্তিতে ১জন নার্স ও জন বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালে ১জন নার্স কর্মরত রয়েছেন। তারা বোয়ালখালীতে থেকেও নেই। তাদের পদের বিপরীতে নতুন করে নিয়োগও আসছে না। ফলে সেবা বঞ্চিত হচ্ছেন এলাকাবাসী। কর্মরত অন্যত্র থাকলেও তাদের বেতন ভাতাদি হয় বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে। কাগজে কলমে তারা বোয়ালখালীতেই কর্মরত।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. জিল্লুর রহমান এ বিষয়ে বলেন, ‘উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আউটডোরে প্রতিদিন ৪-৫শত রোগী আসছেন। এছাড়া ইনডোরে শতভাগ রোগী ভর্তি থাকেন। এর মধ্যে চিকিৎসক সংকট থাকায় সেবা নিশ্চিত করতে বেগ পেতে হচ্ছে। যেসব চিকিৎসক ও নার্স প্রেষণে রয়েছেন তাদের নিয়োগ বাতিল করা হলে ওই স্থলে নতুন ডাক্তার-নার্স নিয়োগ পেলে শতভাগ চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা যাবে।’

তিনি জানান, বোয়ালখালীতে ৩১টি পদের বিপরীতে চিকিৎসক রয়েছেন ২১ জন। এর মধ্যে ৪জন চিকিৎসক অন্যত্র প্রেষণে নিযুক্ত রয়েছেন। নার্স সংকট প্রকট। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মাত্র ১০জন নার্স রয়েছেন। এর মধ্যে ৫জন নার্স অন্যত্র প্রেষণে নিযুক্ত।

২৪ ঘণ্টা/পূজন