কামরুল ইসলাম দুলু : সীতাকুণ্ড উপজেলার বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নে স্ত্রীর হাতে স্বামী খুনের ২ দিনের মাথায় আবারো খুনের ঘটনা ঘটেছে। এবার ছোট ভাইয়ের হাতে খুন হলো বড় ভাই। জায়গা-জমির বিরোধে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

সোমবার দুপুর ১২ টার সময় উপজেলার বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের দিঘির নামা গ্রামের নতুন তেলিবাড়িতে এঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ঘরের কাজ করার সময় আপন দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝাগড়া সৃষ্টির এক পর্যায়ে বড় ভাই মোঃ ইসহাক(৫৭) কে রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্বক জখম করে আপন ছোট ভাই মোঃ ইব্রাহিম।

আহতবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুপুর ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত ইসহাকের আরেক ছোট ভাইয়ের স্ত্রী শিরিন আক্তার বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে ঘর তৈরী নিয়ে ভাইদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। আজ ঘরের পার্টিশান দেওয়ার সময় আমার ভাসুরের সাথে দেববের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ভাসুরকে আঘাত করে ইব্রাহিম। এতে তিনি মারাত্বক জখম হয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তিনি মারা যান। এসময় নিহত আমার ভাসুরের স্ত্রী কোহিনুর বেগমও আহত হয়। তাকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ৫নং বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাদাকাত উল্লাহ মিয়াজী বলেন, আমার ইউনিয়নের আলন মিয়ার ৯ ছেলেদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জায়গা -জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। আজও ঘর তৈরী করার সময় দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝগড়া লেগে ছোট ভাইয়ের হাতে মারাত্বক আহত হন ইসহাক। হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর সীতাকুণ্ড থানার ওসি সুমন বনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এদিকে ঘটনার পর পরই ইব্রাহিম পালিয়ে যায়।