নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনই সঙ্কট মুক্তির একমাত্র পথঃ শামীম

  |  শুক্রবার, অক্টোবর ৮, ২০২১ |  ৮:৪৪ অপরাহ্ণ
24ghonta-google-news

দেশের সঙ্কট নিরসনে বর্তমান সরকারের পদত্যাগ এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনই একমাত্র পথ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম। তিনি বলেন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে হলে গ্রহণযোগ্য সরকার থাকতে হবে। বর্তমান সরকারের পতনের মধ্য দিয়ে যে নিরপেক্ষ সরকার ও নির্দলীয় নির্বাচন কমিশন হবে সেই কমিশনের অধীনে দেশের মানুষের কাঙ্ক্ষিত নির্বাচন হবে।

তিনি শুক্রবার (৮ অক্টোবর) বিকালে নগরীর ওয়াসা মোড়স্থ মুনতাসির সেন্টারে খুলশী থানা বিএনপির মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

24ghonta-google-news

শামীম বলেন, দেশে একটা স্বচ্ছ নির্বাচন হবে এটাই হচ্ছে জনগণের আকাঙ্ক্ষা। জনগণ যাকে ইচ্ছা ভোট দিবে। কারণ জনগণ হচ্ছে দেশের মালিক। কিন্তু এটা তো সরকার ভুলে গেছে। তারা তো আবারো কে এম নূরুল হুদার মতো কাউকে নির্বাচন কমিশনার বানাতে ওঠেপড়ে লেগেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে আর কোনো নির্বাচন হতে পারে না। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো নির্বাচন নির্বাচন খেলায় জনগণ আৱ অংশ নেবে না। ২০১৪ সালে ১৫৪ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলো। আর ২০১৮ সালের নির্বাচনে আগের রাতেই ভোট চুরি করে নিয়েছিলো আওয়ামী লীগ। এখন তারা বলছে আগামী সংসদ নির্বাচনে ১৫০ টি আসনে ইভিএম ব্যবহার হবে। তাহলে তো ১৫০ টি আসন নিয়ে গেলে আর তো কিছু লাগে না। তিনি তৃণমূল পর্যায়ে নেতাকর্মীদের সংগঠিত করে আগামী দিনের আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত থাকার আহবান জানান।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, দেশে গণতন্ত্রের লেশমাত্র অবশিষ্ট নেই। ফ্যাসিবাদ সরকারের অধীনে দেশ পরিচালিত হচ্ছে। বিএনপিসহ বিরোধীদলগুলো কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কোনো স্পেস পাচ্ছে না। শুধু বিএনপি নয়, সব রাজনৈতিক দল একটি দুর্বিষহ সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে সরকার গৃহবন্দি করে রেখেছে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান আট হাজার মাইল দূর থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তার নেতৃত্বে বিএনপি আগের চেয়ে অনেক বেশি সুসংগঠিত হয়েছে। চট্টগ্রামে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলো অনেক শক্তিশালী হয়েছে।

ডা. শাহাদাত বলেন, আওয়ামীলীগ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না। এরা জবরদস্তিমূলক দখলদার সরকার। বিএনপি এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেন, আওয়ামীলীগ যদি সত্যিকার অর্থে একটি নির্বাচন চায়, তাহলে আগে সব রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে। তাদের মতামতের ভিত্তিতে একটি নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠনের বিষয়ে একমত হতে হবে। তারপর একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে। এছাড়া নির্বাচন হলে তা হবে একটি প্রহসনের নির্বাচন। তিনি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠনকে শক্তিশালী করার আহবান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক হারুনুর রশীদ ভিপি বলেন, বিএনপি কখনোই অদৃশ্য শক্তির বলে ক্ষমতায় আসেনি। যতবার ক্ষমতায় এসেছে, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে ক্ষমতায় এসেছে। বর্তমান সরকার অদৃশ্য শক্তির সহায়তায় আগের রাতে ভোটবাক্স ভরে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে।

খুলশী থানা বিএনপির আহবায়ক ও মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট আবদুস সাত্তারের সভাপতিত্বে ও মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মো. শাহ আলমের পরিচালনায় মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সি. যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব এম এ আজিজ, যুগ্ম আহবায়ক এস এম সাইফুল আলম, এস কে খোদা তোতন, শফিকুর রহমান স্বপন, কাজী বেলাল উদ্দিন, ইসকান্দর মির্জা, আহবায়ক কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর আলম দুলাল, গাজী মো. সিরাজ উল্লাহ, মো. কামরুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন নগর বিএনপি নেতা ইউছুপ জামাল, আবদুল হালিম স্বপন, ইউছুপ আলী, মনিরুল ইসলাম মনির, ওয়ার্ড় বিএনপির সভাপতি এডভোকেট আবুল কাশেম মজুমদার, জাহিদ মাষ্টার, সাধারণ সম্পাদক, নাসিম আহমেদ, এস এম আজাদ, বিএনপি নেতা তোফাজ্জল হোসেন, ইব্রাহিম খোকন প্রমুখ।

24ghonta-google-news
24ghonta-google-news