ঈদে ভোগান্তি কমাতে নলকা সেতু উন্মুক্ত

 ২৪ ঘন্টা নিউজ ডেস্ক |  সোমবার, জুলাই ৪, ২০২২ |  ৭:১৩ অপরাহ্ণ
24ghonta-google-news

cঈদে ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তি কমাতে ও যানজট নিরসনে এবার সিরাজগঞ্জের নলকা সেতুর ঢাকামুখী লেন চালু করা হয়েছে। আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সেতুটির ঢাকামুখী লেন উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এর আগে গত ঈদুল ফিতরে যাত্রীদের ভোগান্তি কমাতে সেতুর উত্তরাঞ্চলমুখী লেন খুলে দেওয়া হয়।

এ সময় সেতু কর্তৃপক্ষের উপপ্রকল্প ব্যবস্থাপক আবু সাদ, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মীর আখতার হোসেন লিমিটেডের প্রজেক্ট ম্যানেজার এখলাস উদ্দিন, ডেপুটি প্রজেক্ট ম্যানেজার শের শাহ, সিরাজগঞ্জ হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

সেতুটির ঢাকামুখী লেন খুলে দেওয়ায় ঈদুল আজহা উপলক্ষে বাড়ি ফেরা উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের ২২ জেলার মানুষের যাতায়াতের ভোগান্তি কেটে যাবে বলে আশা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের।

সেতুটি নির্মাণে দায়িত্বপ্রাপ্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মীর আখতার হোসেন লিমিটেডের প্রজেক্ট ম্যানেজার এখলাস উদ্দিন বলেন, ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঈদে ঘরমুখী মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারে এজন্য সেতুর ঢাকামুখী লেন খুলে দেওয়া হলো।

হাইওয়ে পুলিশ এবং সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অফিস সূত্রে জানা যায়, ঢাকার সঙ্গে দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের ২২ জেলার সড়ক পথে যোগাযোগের অন্যতম রুট সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়ক। তবে এই মহাসড়ক তৈরির আগেই সিরাজগঞ্জের সঙ্গে উত্তরঞ্চল ও দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের জন্য ১৯৮৮ সালে ফুলজজোড় নদীর ওপর নলকা সেতু নির্মাণ করা হয়।

বঙ্গবন্ধু সেতু নির্মাণ হওয়ার পর এ সেতুর ওপর চাপ বাড়তে থাকে। প্রতিদিন এই সেতু দিয়ে ১৭ থেকে ১৮ হাজার যানবাহন চলাচল করে। আর ঈদের আগে প্রতিদিন এই সেতু দিয়ে ৩০ থেকে ৩৫ হাজার যানবাহন চলাচল করে। এতে কমতে থাকে সেতুর স্থায়ীত্বকাল। একপর্যায়ে সেতুটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় এর ওপর দিয়ে ধীরগতিতে চলাচল করতে থাকে যানবাহন। এ কারণে জরাজীর্ণ এ সেতুটির কারণে প্রতি বছর ঈদে পুরো মহাসড়কে ভোগান্তি পোহাতে হয়।

পরে সাউথ এশিয়া সাব-রিজিওনাল ইকোনমিক কো-অপারেশন (সাসেক)-২ প্রকল্পের এলেঙ্গা-রংপুর চারলেন মহাসড়ক নির্মাণের আওতায় নতুন করে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। গত ঈদুল ফিতরে যাত্রীদের ভোগান্তি কমাতে সেতুর উত্তরাঞ্চলমুখী লেন খুলে দেওয়া হয়। এবার সেতুর ঢাকামুখী লেনটিও খুলে দেওয়া হলো।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান বলেন, ঈদে ঘরমুখী মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরতে পারে এজন্য হাইওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে ঈদের আগেই সেতুটি চালু করার বারবার তাগিদ দিয়ে আসছিলাম। নবনির্মিত নলকা সেতুর উভয় লেন চালুর ফলে দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ পাবেন উত্তরাঞ্চলের যাত্রীরা।

বঙ্গবন্ধু সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান মাসুদ বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহায় ঘরে ফেরা মানুষের ভোগান্তি কমাতে সেতুটির দুটি লেন খুলে দেওয়া হলো। প্রতিদিন সেতু দিয়ে ১৭ থেকে ১৮ হাজার যানবাহন চলাচল করে। আর ঈদের আগে এই সেতু দিয়ে ৩০ থেকে ৩৫ হাজার যানবাহন চলাচল করে। একই পরিমাণ যান চলাচল করে নলকা সেতু দিয়ে। আজ নলকা সেতু চালু হওয়ার কারণে যানজটের কবলে পড়তে হবে না যাত্রীদের।

এন-কে

24ghonta-google-news
24ghonta-google-news